আরব আমিরাতে বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালিত হয়েছে


নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১, ৫:৫১ পূর্বাহ্ন /
আরব আমিরাতে বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালিত হয়েছে

তারেক রহমান শহীদ জিয়ার প্রতিচ্ছবি – ব্যারিস্টার মীর হেলাল

মোদাচ্ছের শাহঃ বর্তমানে বাংলাদেশের গনতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল বলতে বিএনপিকেই বুঝায়। এই সেই বিএনপি যার প্রতিষ্ঠাতা শহিদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ঘোষণায় মুক্তিকামী মানুষ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল। অথচ দুঃখের সাথে বলতে হচ্ছে সেক্টর কমান্ডার শহিদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে অস্বীকার করে স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতি করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে আওয়ামিলীগ সরকার।

গতকাল শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবদুল ছালাম তালুকদারের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোস্তফা মাহমুদ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম রুপুর যৌথ সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সুপ্রীম কোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী ব্যারিস্টার মীর হেলাল।

তারেক রহমান আগামীর রাষ্ট্র নায়ক উল্লেখ করে মীর হেলাল বলেন, মেজর জিয়ার প্রতিচ্ছবি তারেক রহমান। তিনি তার পিতার মতোই দেশ ও দেশের মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়নে দৃঢ়ভাবে সংকল্পবদ্ধ। এসময় তিনি দেশে আটকেপড়া প্রবাসীদের আমিরাতে ফেরত আসতে দেশের বিমানবন্দরে রেপিড পিসিআর ল্যাব স্থাপনে বিলম্ব করায় সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘আ.লীগ সরকার প্রবাসীদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট কোন কাজে আগ্রহ দেখায় না। আটকে পড়া ৫০ হাজার প্রবাসীর পরিবারের কথা একটা বার চিন্তা করলো না তারা।’ ইউএই বিএনপির সভাপতি জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল সালাম তালুকদারের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থেকে সরকার বিরোধী আন্দোলনে শরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে আলহাজ্ব মোহাম্মদ রফিক সাহেব কে আহবায়ক ও মুজিবুল হক মঞ্জুকে সচিব করে ৩৭ সদস্যের দুবাই বিএনপির কমিটির নাম ঘোষণা করে তাদের কে দলের দুঃসময়ে একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করার নির্দেশ দেন।

প্রধান বক্তা হিসেবে টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন ইউএই বিএনপির সভাপতি জাকির হোসেন।

মোহাম্মদ এরশাদের কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু করে অনুষ্টানে স্বাগতিক বক্তব্য রাখেন সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সায়েদ আহমেদ রাসেল, আরো বক্তব্য রাখেন, সহ সভাপতি আমিরুল ইসলাম এনাম চৌধুরী, আব্দুর রশিদ, মোঃরফিক, যুগ্ম সম্পাদক আবদুল কুদ্দুস খালেদ, শহিদুল ইসলাম এস এম ফারুক, সোলায়মান, নুর হোসেন সুমন, আবুধাবির বিএনপির সভাপতি ইসমাঈল হোসেন তালুকদার, আল আইন বিএনপির সভাপতি শওকত ওসমান, আজমান বিএনপির সভাপতি শাহানুর শাহীন, শারজাহ বিএনপি সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার করিমুল হক, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির সহ গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এস,এম মোদাচ্ছেত শাহ, ফুজিরা বিএনপির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, রাস-আল খাইমাহ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল খালেক, মুসাফফা বিএনপির সভাপতি রুহুল আমিন, দুবাই বিনপির সদস্য সচিব মুজিবুল হক মঞ্জু, ইউএই বিএনপির মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা শামছুন নাহার স্বপ্না।

বক্তব্য রাখেন, আলাউদ্দিন, নাছির উদ্দিন ছৌধুরী,আজিজুল ইসলাম কিরন, মোঃসজীব খাঁন, আতাউর রহমান আতা, আহন্মেদ হোসেন তালুকদার, আমিরুল ইসলাম টিপু, তছলিম উদ্দিন চৌধুরী, আবদুল আলিম সাইফুল, ফরিদ আহমেদ শাহিন, নীল রতন দাস, এরাশাদুল আলম, জামাল উদ্দিন,হুমায়ুন কবির সুমন,
ছাত্রনেতা জাকারিয়া রাশেদ, সাহেদ,ভিপি ইলিয়াস,নাজিম উদ্দিন সোহেল
,মোহাম্মদ তারেক প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে বিএনপির আমিরাতের নয়টি সাংগঠনিক শাখার নেতৃবৃন্দদের নিয়ে অতিথিরা কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করেন।